মোবাইল থেকে টাকা ইনকামের ৩ টি উপায়, প্রতি মাসে আয় করুন ৪০-৫০ হাজার টাকা

মোবাইল থেকে টাকা ইনকাম করা যায়, এই বিষয়টা আমাদের কমবেশি সবারই জানা আছে। তবে ঠিক কোন কোন উপায়ে মোবাইল থেকে ইনকাম করা যায় সে সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না। তাছাড়া তথ্যপ্রযুক্তির যুগে যতদিন বাড়ছে ততোই মোবাইল থেকে ইনকাম করার উপায় বেড়েই চলেছে। আপনিও চাইলে মোবাইল থেকে প্রতি মাসে 40 থেকে 50 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারেন।

মোবাইল থেকে ইনকাম করার অনেক উপায় রয়েছে। আমরা আজকে মূলত তিনটি উপায় সম্পর্কে আপনাকে জানাবো। যে গুলির মাধ্যমে আপনি আপনার অনলাইন ইনকামের যাত্রা শুরু করতে পারেন। আজকের এই পোস্টে আমরা কোন ফালতু কথা না বলে মোবাইল থেকে ইনকাম করার আসল বা জেনুইন কিছু উপায় সম্পর্কে আপনাকে জানাবো।

তাহলে আর বেশি কথা না বাড়িয়ে মোবাইল থেকে ইনকাম করার কিছু উপায় সম্পর্কে আলোচনা করি। যার সাহায্যে খুব সহজে 40 থেকে 50 হাজার টাকা প্রতি মাসে ইনকাম করা সম্ভব।

Earn 40 to 50 thousand Rs Through Mobile 3 Way
মোবাইল থেকে টাকা ইনকামের তিন উপায়

১. রেফার এবং ইনকাম (Refer and Earn)

রেফার এবং ইনকাম (Refer and Earn) এর কথা শুনলেই পাঁচ টাকা দশ টাকার বিনিময়ে বন্ধুদেরকে কোন অ্যাপ রেফার এর কথা মনে পড়ে। কিন্তু আমরা আজকে পাঁচ টাকা দশ টাকার রেফারের কথা বলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ সময় নষ্ট করব না। আজকে এমন রেফার এবং ইনকামের কথা আপনাকে জানাবো যা ব্যবহার করে আপনি প্রতিমাসে মোটা টাকা ইনকাম করতে পারেন।

রেফার এবং ইনকাম হলো একটি রেফারেল বেসড মার্কেটিং মডেল। এই মডেলের মাধ্যমে বিভিন্ন বড় বড় স্টার্ট আপ কোম্পানিগুলো তাদের অ্যাপ্লিকেশন রেফারের জন্য ভালো টাকা দিয়ে থাকে। আজকের এই রেফারেল ইনকাম এর মধ্যে আমরা বেশ কিছু স্টক মার্কেট সম্পর্কিত অ্যাপের কথা বলব যেগুলো আপনি সঠিক পদ্ধতিতে রেফার করে ভালো টাকা আপনার পকেটে ঢোকাতে পারেন।

নিচে আমরা পাঁচটি অ্যাপ সম্পর্কে জানিয়েছি, যেগুলো রেফার পদ্ধতিতে ভালো টাকা দিয়ে থাকে-

Upstox অ্যাপ থেকে টাকা ইনকাম

বর্তমানে সবথেকে জনপ্রিয় স্টক মার্কেট ইনভেস্ট অ্যাপ হল Upstox। এই অ্যাপটি রতন টাটা ফান্ড করেছে যে কারণে এই অ্যাপের বিশ্বাসযোগ্যতা বেশি। এই অ্যাপে আপনি অ্যাকাউন্ট বানিয়ে বিভিন্ন স্টকে ইনভেস্ট করতে পারেন। সেইসঙ্গে খুব ভালো বিষয় হচ্ছে এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি রেফারেলের মাধ্যমে প্রতি মাসে ভালো ভালো টাকা ইনকাম করতে পারেন। কেননা এই অ্যাপ 200 টাকা থেকে শুরু করে 1200 টাকা পর্যন্ত প্রতি রেফারে দিয়ে থাকে।

Grow অ্যাপ থেকে টাকা ইনকাম

এটিও Upstox এর মতোই অ্যাপ। এর মাধ্যমে বিভিন্ন স্টকে টাকা ইনভেস্ট করা হয়। এই অ্যাপে প্রতি রেফারে 100 টাকা করে দেওয়া হয়। Grow অ্যাপে অ্যাকাউন্ট বানিয়ে আপনি রেফারেলের মাধ্যমেও ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

Zerodha থেকে টাকা ইনকাম

Zerodha হলো ভারতের সবথেকে পুরনো স্টক ইনভেস্ট কোম্পানি। এর অনেক বেশি ইউজার বেস রয়েছে। যদিও এতে রেফারের মাধ্যমে টাকা দেওয়া হয় না।কিন্তু ব্রোকারেজ কমিশন দেওয়া হয় যা 10% পর্যন্ত হয়ে থাকে। তাছাড়া রেফারেল হিসেবে 300 পয়েন্ট দেওয়া হয় যেগুলো পরে ব্যবহার করা হয়।

5 Paisa থেকে টাকা ইনকাম

এই অ্যাপটি অনেক পুরোনো। প্রথমে এই অ্যাপে বিভিন্ন পরিষেবা প্রদান করা হতো। কিন্তু পরবর্তীকালে স্টক ইনভেস্ট এর পরিষেবাও এতে চালু করা হয়। বর্তমানে এই আপটি রেফার করলে প্রথম রেফারে 500 টাকা পর্যন্ত পাওয়া যায়। পরবর্তী রেফারগুলোতে জন্য 250 টাকা করে দেওয়া হয়। এর মাধ্যমেও ভালো টাকা ইনকাম করা যায়।

CoinDCX অ্যাপ থেকে টাকা ইনকাম

CoinDCX অ্যাপটি স্টক মার্কেটের জন্য ব্যবহার করা হয় হয় না। এটি মূলত ক্রিপ্টোকারেন্সিতে ইনভেস্ট করার জন্য ব্যবহার করা হয়। বিগত কয়েক মাসে CoinDCX এর মার্কেট ভীষণভাবে বেড়েছে। বর্তমান সময়ে ভারতের জনগণের মধ্যে ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্পর্কে সচেতনতা বেড়েছে। যে কারণে তারা ক্রিপ্টোকারেন্সিতে ইনভেস্ট করা শুরু করে দিয়েছে। এই অ্যাপটি কাওকে রেফার করলে 100 টাকার Etherium (ETH) নামের ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রদান করে। পরে তা ভারতীয় টাকায় রূপান্তর করে নিজস্ব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাঠানো যায়।

অ্যাপগুলি প্রমোশন করার উপায়

এই অ্যাপগুলি প্রমোশন করার প্রথম মাধ্যম হতে পারে আপনার বন্ধু বান্ধবরা। যদি আপনি এমনটা না করতে চান তাহলে অন্য উপায় আছে। যদি আপনি স্টক মার্কেট সম্পর্কিত একটি ইউটিউব চ্যানেল খোলেন এবং সেখানে স্টক মার্কেটে বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য গুলি ভিডিওর মাধ্যমে উপস্থাপন করেন তাহলে সেই ভিডিওর মাধ্যমে আপনি উপরে দেওয়া অ্যাপগুলি রেফার করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এই অ্যাপগুলি প্রমোশন করার আরেকটি মাধ্যম হচ্ছে ব্লগ অর্থাৎ আপনার একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে সেখানে স্টক মার্কেটে সম্পর্কিত বিভিন্ন নিউজ এবং আপডেট প্রদান করে আপনি আপনার সমস্ত অ্যাপ গুলোর লিংক দিয়ে দিতে পারেন। সেগুলো আপনার অডিয়েন্সদের দিয়ে ডাউনলোড করাবেন এবং সেগুলোতে রেজিস্ট্রেশন করলে আপনি আপনার রেফারেল ইনকাম পাবেন।

২. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং (Affiliate Marketing)

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং যে শুধুমাত্র অনলাইনেই করা হয় তা নয়। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং অফলাইনেও করা হয়। অফলাইনের কথাটা আমরা এই কারণে বলছি যাতে আপনি সঠিকভাবে বিষয়টি বুঝতে পারেন। আপনি দেখবেন কোনো বাইক শোরুমে আপনি বাইক কিনতে গেলে সেখানে সেলস এক্সিকিউটিভ আপনাকে তাদের বাইক বিক্রি করার জন্য বিভিন্নভাবে উৎসাহিত করবেন। কেননা যদি সে একটি সেল বের করতে পারে সেখান থেকে তার ভালো মানের কমিশন পেয়ে যাবে। এটাই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। বর্তমানে অনলাইনে ঠিক একই ভাবে কিন্তু অন্য পদ্ধতিতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে খুব সহজে আপনি ভালো টাকা ইনকাম করতে পারেন।

আপনাকে আবারো জানিয়ে রাখি, অন্য কারো জিনিস বিক্রি করলে কিছু পারসেন্টেজ (%) কমিশন পাওয়া যায় এটাই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। আর মোবাইলের মাধ্যমে খুব সহজ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করা যেতে পারে। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর জন্য বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় লক্ষণীয় যেগুলো হলো-

  • Affiliate product নির্বাচন
  • Facebook অ্যাকাউন্ট তৈরি
  • সেল স্কিল

৩. লেখালেখি করে ইনকাম

আপনি যদি লেখালেখি করতে ভালোবাসেন বা আপনার লেখার দক্ষতা থাকে তাহলে আপনার মোবাইল থেকে প্রতি মাসে ৪০-৫০ হাজার টাকা ইনকাম করা আরো সহজ। আর এই সমস্ত কাজ আপনি আপনার মোবাইলের মাধ্যমেই করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে Pocket FM নামের অ্যাপের মাধ্যমে লেখালেখি করে টাকা ইনকাম করার সুযোগ রয়েছে। এই Pocket FM অ্যাপ Pocket Novel নামের প্রোগ্রাম চালু করেছে। এই প্রোগ্রামে বাংলা ভাষাও সাপোর্ট করছে। যেকারনে যারা বাংলা ভাষায় লিখতে চায় তারাও লেখালেখি করে টাকা ইনকাম করতে পারবে।

Pocket FM থেকে টাকা ইনকাম

Pocket FM অ্যাপের Pocket Novel প্রোগ্রাম ৫০ হাজার থেকে ৭০ হাজার শব্দ লেখার জন্য দেওয়া হবে 5000 টাকা। ৭০ হাজারের বেশি শব্দ লেখার জন্য দেওয়া হবে 8000 টাকা। সেইসাথে অ্যাডিশনাল বোনাসেরও ব্যাবস্থা রয়েছে। ১ লক্ষ ৫০ হাজার শব্দ লিখলে 2500 টাকার বোনাস দেওয়া হবে এবং ২ লক্ষ ৫০ হাজার এবং তার বেশি শব্দ লিখলে 5000 টাকার বোনাস দেওয়া হবে।

আপনার এখন এমনটাও মনে হতে পারে যে, এতো শব্দ কিভাবে লেখা সম্ভব। তা আপনাকে জানিয়ে রাখি, যদি আপনার লেখালেখির কাজ করতে ভালোলাগে এবং লিখন দক্ষতা থাকে ঐ পরিমান শব্দ লেখা অসম্বভব কিছু না। উপরন্তু তার থেকেও বেশি শব্দের উপন্যাস বা নোভেল আপনি লিখতে পারবেন।

আজকের লেখা থেকে আমরা মোবাইলের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করার তিনটে উপায় সম্পর্কে জানলাম। আশা করি, বিষয়টি আপনি বুঝতে পেরেছেন। আপনি আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়েছেন। তার মানে আপনার অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে আগ্রহ আছে। আপনি যদি অনলাইন ইনকাম সম্পর্কিত নতুন নতুন বিষয় জানতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করুন।

Previous articleপেপার প্লেট তৈরির ব্যবসা কিভাবে শুরু করতে হয় | Paper Plate Making Business and Profit in Bengali
Next articleশুধুমাত্র সরকারি চাকরির প্রস্তুতি নেওয়া কি ঠিক?